ভ্রমণের আগের প্রস্তুতি

প্রকাশ : 15 জানুয়ারি 2011, শনিবার, সময় : 18:36, পঠিত 2329 বার

ভ্রমণে সঙ্গে নিন
পাহাড়ে : উলের জ্যাকেট, টার্টলনেক সোয়েটার, স্কার্ফ, ক্যাপ, গ্লাভস, জিন্সের ট্রাউজার, শক্ত এবং টেকসই জুতো, ব্যাগ, সানগ্লাস, বাইনোকুলার, সানস্ক্রিম এবং বমি বন্ধের ট্যাবলেট।
সমুদ্রে : সুইম স্যুট, বিচ স্যান্ডেল, সান হ্যাট, টাওয়েল, ওয়াটার প্রফ কণ্টাক্ট লেন্স (যারা চশমা বা লেন্স ব্যবহার করেন), শর্টস।
অরণ্যে : ইনসেক্ট রেপেলেন্ট, ক্যাজুয়াল ড্রেস, টর্চ, ব্যাটারি, বাইনোকুলার, কাভারড সুজ।

যা কিছু মেনে চলবেন
ভ্রমণের পূর্বশর্ত হল তার পরিকল্পনা। কোথায় যাবেন ? কীভাবে যাবেন ? কত দিন থাকবেন ইত্যাদি প্রশ্নের জবাব তৈরি করাই পরিকল্পনা। তাই সুন্দর একটা পরিকল্পনা তৈরি করুন ভ্রমণের জন্য।
যেখানে যাবেন সে স্থান সম্পর্কে অভিজ্ঞ কারও কাছ থেকে পূর্ব ধারণা নিয়ে নিন। এটা বই পড়েও জানতে পারেন। সেখানকার আবহাওয়া ও পরিবেশ সম্পর্কে জেনে নিন যাওয়ার আগেই।
কয়েক দিনের জন্য হলে কোথায় থাকবেন তার ব্যবস্থা করুন পৌঁছার আগেই। ভালো হয় যদি কয়েকদিন আগেই থাকার জায়গা সম্পর্কে নিশ্চিত হয়ে নেয়া যায়। কারণ ভ্রমণের মৌসুমে সবাই ভ্রমণ করতে চায়, তাই জায়গা সংকট হতে পারে।
দেশের বাইরে হলে অবশ্যই গাইডের সাহায্য নেবেন। ভালো হয় যদি নিজস্ব ভাষার গাইড পাওয়া যায়। গাইডের নির্দেশনা মেনে চলুন। প্রয়োজনীয় কিছু নেয়ার থাকলে সঙ্গে নিয়ে যাবেন।
হোটেল বা বাসস্থান থেকে কোথাও গেলে সঙ্গে টাকা-পয়সা রাখবেন অবশ্যই। কয়েকজন মিলে ট্যুর করলে যেখানেই যাবেন সবাই মিলে একসঙ্গে যাবেন। একা একা অচেনা পথে বেরুবেন না।
যেখানে ট্যুর করছেন সেখানকার সংস্কৃতির প্রতি সম্মান দেখাবেন। তবে নিজের সংস্কৃতির কথাও ভুলে যাবেন না।
খাবারের ক্ষেত্রে সতর্ক থাকবেন। যা কিছু কিনবেন, খাবেন, দাম জেনে নেবেন আগেই। আর খাবার অপরিচিত হলে আগেই সেটির ব্যাপারে জেনে নেবেন। কারণ খাবার সংস্কৃতি আপনার সঙ্গে বা আপনার অঞ্চলের সঙ্গে নাও মিলতে পারে।
ট্যুরটা যদি আপনার একাডেমিক শিক্ষার সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত হয় তাহলে প্রয়োজনীয় খাতা-কলম নিয়ে যাবেন। আর অবশ্যই ঘোরার ফাঁকে ফাঁকে নোট নিয়ে নেবেন। অচেনা-অজানা হলে গাইডকে জিজ্ঞেস করে তার সম্পর্কে জেনে নিন।
প্রয়োজনীয় ফোন নম্বর ও স্থানীয় প্রশাসনের লোকেশন জেনে নেয়া ভালো। তাহলে কোনও সমস্যায় সহযোগিতা পেতে পারেন।

হোটেল বা যেখানে থাকবেন
যেখানে থাকবেন চেষ্টা করবেন সরাসরি বাইরের পরিবেশ দেখা যায় এমন রুমে থাকতে। তাহলে আপনার ভ্রমণের মজাটা পাবেন একটু বেশিই।
হোটেল হলে নিয়ম-কানুন মেনে চলুন। শুরুতেই হোটেল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে পরিচিত হয়ে নিন। বাইরে গেলে হোটেলের নাম-ঠিকানা, ফোন নম্বর সঙ্গে রাখুন।
হোটেলের ভেতর জিনিসপত্র নিজ দায়িত্বে রাখুন। বাইরে যাওয়ার সময় দরজা লক করে যাবেন।
হোটেল বয়দের সঙ্গে ভালো ব্যবহার করবেন। প্রয়োজনে কাজ ও আন্তরিকতা ভালো দেখলে কিছু টিপস দিতে পারেন। এতে খুশি হয়ে আপনার কাজ করে দেবে।
হোটেল বা বাসস্থান ত্যাগের সময় সবকিছু নিয়েছেন কিনা অথবা কিছু রয়ে গেল কিনা ভালো করে দেখে নিন।

যা থেকে বিরত থাকবেন
পর্যাপ্ত টাকা-পয়সা না নিয়ে ট্যুরে বের হবেন না।
আনন্দ করতে গিয়ে বেশি আবেগপ্রবণ হবেন না।
অন্যের ডিস্টার্ব হয় এমন কাজ বা আনন্দ করতে যাবেন না। হোটেলে হৈচৈ বা চিৎকার চেঁচামেচি করবেন না।
নিষিদ্ধ এরিয়ায় ঢুকবেন না। কিংবা গাইডের নির্দেশনা অমান্য করে কোনও কাজ করবেন না।
নিজের সঙ্গীদের ছেড়ে বা না বলে একা একা কোথাও চলে যাবেন না।
ট্যুরের সময়টুকুতে খাওয়া-দাওয়ার একদমই অনিয়ম করবেন না। আবার পেটে সমস্যা হতে পারে এমন খাবারও খাবেন না।
যেখানে বেড়াতে গেছেন সেখানকার স্থানীয় বাসিন্দাদের সঙ্গে কিংবা অন্য ট্যুরিস্টদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করবেন না।


সর্বশেষ


সর্বাধিক পঠিত

Music | Ringtone | Book | Slider | Newspaper | Dictionary | Typing | Free Font | Converter | BTCL | Live Tv | Flash Clock Copyright@2010-2014 turiseguide24.com. all right reserved.
Developed by i2soft Technology