দিনাজপুর

দিনাজপুরের কড়াই বিল একটি দর্শনীয় পর্যটন কেন্দ্র

প্রকাশ : 28 ফেব্রুয়ারি 2011, সোমবার, সময় : 13:23, পঠিত 5783 বার

দিনাজপুর থেকে রিয়াজুল ইসলাম ॥
অতিথি পাখিদের মুখরিত কলতান ও জলকেলির মনোমুগ্ধকর দৃশ্য দেখতে দর্শনার্থীদের আকৃষ্ট করছে করাইবিল ভ্রমনে। শীতের শুরুতে সূদুর সাইবেরিয়াসহ শীত প্রধান দেশের অথিতি পাখিরা এসেছে। এসব পাখির মধ্যে প্রধানত বালি হাঁস, পানকৌড়ি, সরলিসহ বিভিন্ন জাতের পাখির সমাগম অন্যতম। বিলের গাছপালাসহ জলাশয়ে বিভিন্ন জাতের অথিতি পাখির কিচির-মিচির শব্দে এলাকা মুখরিত। কিন্ত এবার শীতে পাখির আগমন কম হলেও থেমে নেই প্রতিদিন প্রকৃতি প্রেমি নারী-পুরুষসহ নানা বয়সের দর্শণাথীদের আগমন। বিলের পাড়ের ছায়া ঘেরা পরিবেশে শীত উপেক্ষা করেও অথিতি পাখির উড়া উড়ি , কিচির-মিচির শব্দ ও জলকেলির দৃশ্য দেখে মুগ্ধ হয় তারা।
বিলের চারপাশে বিভিন্ন ধরনের সবুজ গাছ-গাছালি রয়েছে। ঐ বিলের পাড় দিয়ে যেতে যেতে চোখে পড়বে পাড়ের পাশ্বে সারিবদ্ধ টুল-চেয়ার। এগুলোতে বসে  পর্যটকরা কড়াই বিলের প্রাকৃতিক সৌন্দর্য উপভোগ করে। এছাড়া বিলের পাড় দিয়ে যেতে যেতে পাশে দেখতে পাবে টোমেট, কুমড়া, ধনেয়াপাতা ও নানান ধরনে ওষধী ও ফুলের গাছ।
দিনাজপুরের জেলাশহর থেকে ৮ কি:মি: পশ্চিমে বিরল উপজেলা। আর বিরলের পশ্চিমে মাত্র ১ কিলোমিটার পশ্চিমে নাড়াবাড়ী রোর্ড সংলগ্ন হুসনা গ্রামের নীরিবিলি পরিবেশে অবস্থিত বিরলের মুক্তিযোদ্ধা সমিতির কড়াইবিল। পুরো কড়াইবিল জুড়ে রয়েছে প্রাকৃতিক দৃশ্য চোখে পড়ার মত। প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্য এবং মুক্তিযোদ্ধাদের স্বাবলম্বী করার কারণে কড়াইবিল কতৃপক্ষ ইতিমধ্যে বিলটি সরকার কতৃক স্বর্ণপদকে ভূষিত হয়েছে। কড়াই বিলের মুল জলাশয় বিলের পাড়সহ ১৮ একর। এছাড়াও পাশেই রয়েছে প্রায় ৫৬ একর খাস আবাদি জমি। পুরসম্পত্তিটাই স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে সরকার কড়াইবিল সমবায় সমিতিকে দান করে।

উল্লেখ্য, ১৯৭৪ সালে ১৬ ই এপ্রিল এটি তৎকালীন সরকার বিরল থানা মুক্তি যোদ্ধাদের রেজিষ্টি করে দেন। রেজিঃ নং ৭৭১। তারা বিরল থানা মুক্তিযোদ্ধা সমবায় সমিতি লিঃ গঠন করে দর্শনীয় স্থান কড়াই বিল প্রকল্প তৈরি করেছেন। বিরল থানার মুক্তিযোদ্ধা সমবায় সমিতির সভাপতি প্রমথ আব্দুল কাশেম (অরু) ও সাধারন সম্পাদক আব্দুল রহমান আলী। মোট ১৫০ জন এই সমিতির সদস্য রয়েছে তারা কড়াই বিল পরিচালনা করে। শিশু আকাশমনি দেশীকড়াই, আমলকি, মেহেগুনি, আম, কাঠাঁল, জাম, বেল সব মিলিয়ে ১.৫০০ গাছ রয়েছে। এখানে গেষ্ট হাউস নির্মানের কাজ চলছে।


মোঃ রিয়াজুল ইসলাম
তাং-২৭-২-১১ ইং।
মোবাইল--০১৭১৬৬৫১৩৭৯
ই-মেইল-  protidinnews@gmail.com


সর্বশেষ


সর্বাধিক পঠিত

Music | Ringtone | Book | Slider | Newspaper | Dictionary | Typing | Free Font | Converter | BTCL | Live Tv | Flash Clock Copyright@2010-2014 turiseguide24.com. all right reserved.
Developed by i2soft Technology