চট্টগ্রাম

চট্টগ্রামের মোহনীয় মহামায়া

প্রকাশ : 06 অক্টোবর 2011, বৃহস্পতিবার, সময় : 19:42, পঠিত 6466 বার

মাহবুবুর রহমান পলাশ
শরতের মোহনীয় সাজে সেজেছে প্রাকৃতিক রূপবৈচিত্র্যে সমৃদ্ধ মহামায়া লেকের চারিধার, ভাদ্রের বর্ষণমুখর বৃষ্টির ছন্দে মহামায়া লেকের সৌন্দর্য আরেক নতুনরূপ ধারণ করেছে সম্প্রতি। এবারের শরতের রূপের সৌন্দর্যে অবগাহন করতে দর্শনার্থীরা যেন মাতোয়ারা। যে-ই এখানে আসছে হচ্ছে বিমোহিত। বিমুগ্ধচিত্তে সে প্রকৃতির কোলে নিমজ্জিত হচ্ছে ভিন্ন সত্তায়। রূপরানী চট্টলার প্রবেশদ্বার মিরসরাইতে গড়ে ওঠা দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম মহামায়া লেকে সম্প্রতি দর্শনার্থীদের এখন ভিড় বর্ণনাতীত । বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ডের বাস্তবায়ন করা এই সেচ প্রকল্পে দিন দিন নজরকাড়া রূপ দেখতে দূর-দূরান্ত থেকে ছুটে আসছে অগণিত দর্শনার্থী। ভাদ্রের এই ভরা বর্ষায় প্রকল্পটি ভিন্ন রকম সাজে এখন। পুরো লেক জলে টুইটুম্বুর। অতিরিক্ত পানি ইনটেক স্ট্রাকচার দিয়ে ছেড়ে দেয়ায় তা হয়েছে নয়নাভিরাম স্রোতস্বিনী। দর্শনার্থীরা সেখানে ব্লকের ওপর গড়িয়ে পড়া জলে সৃষ্টি হওয়া ক্ষুদে জলপ্রপাতে আনন্দে কেউ হাঁটছে, কেউ খেলছে, কেউ ঝরনার জলে ানে মত্ত। প্রায় ১০ বর্গ কিলোমিটার লেকের জলে অনেকে নৌকা নিয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছে। লেকের বিভিন্ন অংশে পাহাড়ের চূড়া, বনানী, সারি সারি বাগান, জুম চাষ, পাহাড়ি রকমারী ফুলের মেলা, ঝোপে ঝোপে মাছরাঙ্গা আর বকের শিকারি মগ্নতার দৃশ্য। এ ছাড়া অতিথি পাখি, পান কৌড়ি দর্শনার্থীদের বিমোহিত করে। যে যার মতো ছোট্ট ডিঙ্গি কিংবা সপরিবারে বড় নৌকা নিয়ে লেকে সারাবেলা ঘুরে বেড়াচ্ছে। অনেকে ছুটে যাচ্ছে গহিন বনের নানা দৃশ্য অবলোকন করে ঝরনা দেখতে। অনেকাংশে সিলেটের মাধবকুণ্ডের  মতো দৃষ্টিনন্দন এই ঝরনা যে কোন দর্শনার্থীকেই করছে বিমুগ্ধ। এই ভরা বর্ষায় মহামায়া লেক দেখে আসতে পারেন যে কেউ অনায়াসেই।
ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের মিরসরাইয়ের ঠাকুরদিঘিতে এটি। সেখানে মহাসড়কের পাশেই পানি উন্নয়ন বোর্ডের সাইনবোর্ড। প্রকল্প থেকে মহাসড়ক থেকে মাত্র ১ কিলোমিটার পূর্বদিকে পাহাড়ের কোলেই এই মহামায়া লেক।
এখানে যে কেউ এসে সারাটাদিন মহাআনন্দে কাটাতে পারেন।


সর্বশেষ


সর্বাধিক পঠিত

Music | Ringtone | Book | Slider | Newspaper | Dictionary | Typing | Free Font | Converter | BTCL | Live Tv | Flash Clock Copyright@2010-2014 turiseguide24.com. all right reserved.
Developed by i2soft Technology