চট্টগ্রাম

পাহাড় আর হ্রদের মিতালি ফয়’স লেক

প্রকাশ : 15 সেপ্টেম্বর 2011, বৃহস্পতিবার, সময় : 17:44, পঠিত 4291 বার

জুয়েল সরকার
ঈদের আনন্দ ও খুশির দিনে পরিবার-পরিজন নিয়ে ঘুরে বেড়াতে চট্টগ্রামে অবস্থিত বিনোদনকেন্দ্র ফয়’স লেক কনকর্ড, সী ওয়ার্ল্ড কনকর্ড ও ফয়’স লেক রিসোর্ট সেজেছে ঈদের সাজে।
অবারিত সবুজের বুক চিড়ে জেগে ওঠা বিস্ময়কর ফয়’স লেক। এই বিশ্বমানের পার্ক ফয়’স লেকে কনকর্ড রিসোর্টস এবং হানিমুন শ্যালে, যা দেশি-বিদেশি পর্যটক ও ভ্রমণপিপাসুদের মধ্যে আলোড়ন সৃষ্টি করেছে। চট্টগ্রাম শহরের মাঝে শহরের বৃহত্তম এলাকা জিইসি মোড় থেকে ২ মিনিটের দূরত্বে এবং জাকির হোসেন রোডের পাশেই শহরের প্রাণকেন্দ্রে  হ্রদ-পাহাড় ও স্বচ্ছ পানির সমন্বয়ে ফয়’স লেক।
নান্দনিক স্থাপত্য, সুবিশাল পাহাড় আর লেকের সমন্বয়ে গড়ে তোলা এই পার্কে রয়েছে বিভিন্ন রাইডস; যেমন সার্কাস ট্রেন, ফ্যামিলি কোস্টার, ক্যারাওয়াল ফেরিস হুইল, রেড ড্রাই স্লাইড, ইয়েলো ড্রাই স্লাইড, বাম্পার কার, হ্যাপি ডাম্পস সার্কাস সুইং। নৌ ভ্রমণের জন্য রয়েছে আকর্ষণীয় নৌকা, প্যাডেল বোট ও ইলেকট্রিক মোটর বোট। পাহাড়ের বনাঞ্চলে ট্রাকিংয়ের জন্য রয়েছে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা ও সুউচ্চ টাওয়ার। লাঞ্চ ও ডিনারের জন্য আধুনিক রেস্তোরাঁ ‘লেক ভিউ’। দেশি-বিদেশি খাবার ও ফাস্টফুডের জন্য বিভিন্ন ফুড ফিউস। দেশি-বিদেশি পর্যটকের ভিড়ে মুখর থাকে ফয়’স লেক। বিশেষ দিনগুলোতে কনসার্টের আয়োজন করা হয়। এখানে আপনার জন্য রয়েছে সপরিবারে, একান্তে, সদলবলে, সহকর্মীদের নিয়ে সময় কাটানোর অপূর্ব সুযোগ।
ফয়’স লেক রিসোর্ট
পাহাড়ের গা ঘেঁষে নিরিবিলি পরিবেশে অনুপম নির্মাণশৈলী, আধুনিক সুযোগ-সুবিধা, পর্যাপ্ত নিরাপত্তা, আন্তর্জাতিক মান ও সেবার প্রতিশ্রুতি নিয়ে কনকর্ড গড়ে তুলেছে ফয়’স লেক রিসোর্ট। হানিমুন শ্যালে, গোল্ড ও প্লাটিনাম এই তিন ক্যাটিগরির রুম রয়েছে রিসোর্টে। সবচেয়ে মজার ব্যাপার হচ্ছে, রিসোর্টে যেতে হবে স্পিডবোটে। রিসোর্ট গেস্টদের লেকে ঘুরে বেড়ানোর জন্য রয়েছে প্যাডেল বোট। রিসোর্টের ব্যালকনি থেকে উপভোগ করা যাবে স্বচ্ছ জলরাশি, সবুজ পাহাড়, ছুটে চলা হরিণ, বুনো খরগোশ, নানা রকম পাখি। রিসোর্ট সংলগ্ন রয়েছে ফ্লোটিং রেস্তোরাঁ, যেখানে বসে সারা যাবে চা-কফির আড্ডা। এখানে আপনার ভ্রমণ ও একান্ত বিশ্রামকে মোহময় করে তোলার জন্য যা যা প্রয়োজন তার সবকিছুই রয়েছে। এ অভিনব রোমাঞ্চকর সুযোগ আবিষ্কারের জন্য আপনাকে আমন্ত্রণ জানাচ্ছে এই রিসোর্ট, যেখানে পাখপাখালির ডাকে আপনার ঘুম ভাঙবে, স্বচ্ছ পানি, নিবিড় বনের আচ্ছাদনে একাকী দাঁড়ানো নিঃসঙ্গ পাহাড়ের বিচিত্র দিক দৃশ্যাবলি অনাবিল রোমাঞ্চের মোহ।
সী ওয়ার্ল্ড কনকর্ড
আধুনিক স্থাপত্যশৈলী,পাহাড় ও হ্রদের অপরূপ সৌন্দর্যে বিনোদনের নানা আয়োজনে ভরপুর দেশের সর্ববৃহত্ ওয়াটার পার্ক সী ওয়ার্ল্ড কনকর্ড। দর্শনার্থীদের বিনোদনের কথা লক্ষ করে কনকর্ড এন্টারটেইনমেন্ট কো. লি. মজাদার সব রাইড নিয়ে গড়ে তুলেছে সী ওয়ার্ল্ড। বিনোদনপিপাসু দর্শনার্থীদের জন্য এসব পানিভিত্তিক রাইড অত্যন্ত রোমাঞ্চকর আর চমকে পরিপূর্ণ। পানির সঙ্গে হরেক রকম উত্তেজনাকর এই রাইড সবই আধুনিক বিশ্বমানের আদলে গড়া।  ফয়’স লেকের স্বচ্ছ জলরাশির বুক চিড়ে মোটর বোটে ১০ মিনিটের পথ পাড়ি দিলেই সী ওয়ার্ল্ডে দেখা মিলবে দারুণ রোমাঞ্চকর, মনোমুগ্ধকর নানা আয়োজন।
সী ওয়ার্ল্ডের রাইডসের মধ্যে রয়েছে ওয়েভপুল, স্লাইড ওয়ার্ল্ড, ফ্যামিলিপুল, টিউব স্লাইডস, মাল্টি স্লাইডস, ওয়াটার ফল, ডোম স্লাইডস ও প্লে-জোন ও ড্যান্সিং জোন। দর্শনার্থীরা এখানে পাবেন সাগরের বিশাল ঢেউয়ের হাতছানি। সাগরের মতোই কৃত্রিমভাবে ঢেউ আছড়ে পড়ে। ওয়েভপুলের ঢেউ আর গানের তালে মেতে ওঠে তরুণ-তরুণীরা। পার্কের দ্বিতীয় আকর্ষণীয় রাইড হচ্ছে ড্যান্সিং জোন। এখানে কৃত্রিম বৃষ্টির পানিতে ভিজে ও গানের সঙ্গে নেচে নির্মল আনন্দ পান পর্যটকরা। দিনভর পানিমেলায় মেতে থাকার সব আয়োজন রয়েছে ওয়াটার পার্কে। ফয়’স লেক ও পাহাড়ের গা ঘেঁষে করা সী ওয়ার্ল্ডের সৌন্দর্য মুগ্ধ করে সবাইকে।
প্রতিদিন এই পার্কটি দর্শনার্থীদের জন্য খোলা থাকবে সকাল ১১টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত। আর যে কোনো ছুটির  দিন খোলা থাকবে সকাল ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত। এখানে সব ধরনের সুব্যবস্থা আছে। যেমন মহিলা ও পুরুষের জন্য আলাদা চেঞ্জ রুম, আলাদা লকারের ব্যবস্থা, অতিরিক্ত কাপড়, তোয়ালে ভাড়া নেওয়ার ব্যবস্থা। এছাড়াও এখানে রয়েছে বিশ্বমানের সুস্বাদু ও স্বাস্থ্যকর খাবারের ব্যবস্থা, যা ভ্রমণার্থীদের দেবে জিভে পানি আনা স্বাদ। যোগাযোগ : ৮৮৩৩৭৮৬, ৯৮৯৬৪৮২, ৭৭০৭৯৪৬-৪৯, ০১৯১৩-৫৩১৩৮০, ০১৯১৩-৫৩১৪১৯, ০১৯১৩-৫৩১৩৮১।


সর্বশেষ


সর্বাধিক পঠিত

Music | Ringtone | Book | Slider | Newspaper | Dictionary | Typing | Free Font | Converter | BTCL | Live Tv | Flash Clock Copyright@2010-2014 turiseguide24.com. all right reserved.
Developed by i2soft Technology